কোভিদ-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য বায়োকন পেলো তার সোরিয়াসিস ড্রাগ ইটোলিজুম্যাব এর অনুমোদন

Reading Time: 3 minutes

ডঃ শুভময় ব্যানার্জী, পি.এইচ.ডি, নিউক্র্যাড হেলথ বাংলা, জুলাই ১৮, ২০২০

সম্প্রতিকোভিড-১৯ চিকিৎসায় ভারতের ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেলের (DCGI) অনুমোদন পেলো ইটোলিজুম্যাব ড্রাগ। বায়োকন, একটি বায়োফর্মাসিউটিক্যাল সংস্থা কোভিড -19 রোগীদের জরুরি ব্যবহারের জন্য তার সোরিয়াসিস ড্রাগ ইটোলিজুম্যাব (ব্র্যান্ড নেম-আলজুমাব) এর অনুমোদন পেয়েছে। মাত্র ৩০ জন মানুষের ওপর ক্লিনিকাল ট্রায়াল করে মিললো এই অনুমোদন।

ব্যাঙ্গালোরের বায়োফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি বায়োকন এবং কিউবার সেন্টার ফর মলিক্যুলার ইমিউনোলজির  (CIM) যৌথ উদ্যোগে শুরু হয় ইটোলিজুম্যাবের নভেল করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের উপর হিউম্যান ট্রায়াল। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বায়োকন ২০১৩ সালেই সোরিয়াসিস চিকিৎসায় ইটোলিজুম্যাব ব্যবহারের DCGI অনুমোদন পায়। এই বছরের মে মাসে DCGI পুনরায় ইটোলিজুম্যাবকে রিপারপাস ড্রাগ হিসাবে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ব্যবহার করার কথা বিবেচনা করে হিউম্যান ট্রায়ালের অনুমতি দেয়। বায়োকন দিল্লী, ব্যাঙ্গালোর ও মুম্বইয়ের বিভিন্ন হাসপাতালের মোট ৩০ জন করোনা রোগীর উপর এই ট্রায়াল চালায়। ট্রায়ালে ২০ জন রোগীকে অন্যান্য অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিবায়োটিক, হাইড্রক্সি-ক্লোরোকুইন,   অক্সিজেনের সাথে (একে ‘সাপোর্টিভ কেয়ার’ বলে) এই ইটোলিজুম্যাব প্ৰয়োগ করা হয়েছিলো। বাকি ১০ জন রোগী ইটোলিজুম্যাব ছাড়া সর্বোচ্চ সাপোর্টিভ কেয়ার পায়। পরীক্ষায় দেখা যায় ইটোলিজুম্যাব চিকিৎসাধীন ২০ জন রোগীই সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠেন। 

ইটোলিজুম্যাব কি এবং কিভাবে কাজ করে?

ইটোলিজুম্যাব হলো একটি হিউম্যানাইজড মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি (IgG1) যা টি-লিম্ফোসাইটের কোষপর্দায় অবস্থিত ‘কোস্টিমুলেটর’ গ্লাইকোপ্রোটিন অনু CD6 (ক্লাস্টার অফ ডিফারেন্সিয়েশান 6) এর সাথে সংযুক্ত হতে পারে। জৈব-রাসায়নিক গঠন অনুযায়ী, CD6 এর তিনটি  স্ক্যাভেঞ্জার রিসেপ্টর সাইটোসিন-রিচ (SRCR) প্রোটিন ডোমেন আছে। বৈজ্ঞানিক গবেষণায় প্রমাণিত CD6 লাইগ্যান্ড (যা CD6 এর সাথে যুক্ত হয়) সাধারনত, বি-লিম্ফোসাইট, ডেনড্রাইটিক কোষ, অ্যান্টিজেন উপস্থাপনকারী কোষে (APC) পাওয়া যায়। এই লাইগ্যান্ডের নাম CD166 বা অ্যাক্টিভেটেড লিউকোসাইট সেল অ্যাডেশান মলিকিউল (ALCAM)।  SRCR-3 এর সাথে ALCAM যুক্ত হতে পারে। CD6-ALCAM আনবিক যৌগ (Molecular Compound) গঠনের ফলে টি-লিম্ফোসাইট উত্তেজিত হয় এবং Th1, Th17 ইমিউন রেস্পন্স শুরু করে। সাথে সাথে শরীরে বিভিন্ন সাইটোকাইনের (IFN-????, IL-6, TNF-ɑ) পরিমান বাড়তে থাকে। এর ফলে প্রদাহজনিত অটোইমিউন রোগ সোরিয়াসিস দেখা দেয়। আবার, কোভিড-১৯ রোগে একই ভাবে শরীরে বিভিন্ন সাইটোকাইনের পরিমান অস্বাভাবিক হারে বেড়ে গিয়ে ‘সাইটোকাইন স্টর্ম’ তৈরি হয় যা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের সমূহ ক্ষতি করে। 

ইটোলিজুম্যাব  CD6 এর SRCR-1 ডোমেনের সাথে যুক্ত হয়ে, টি-লিম্ফোসাইটের কোষবিভাজন কমিয়ে দেয়। এছাড়া, টি-লিম্ফোসাইটের কিছু অন্তঃকোষীয় প্রোটিনের কাজকে নিয়ন্ত্রণ করে, ইটোলিজুম্যাব প্রো-ইনফ্লামেটোরি সাইটোকাইনের পরিমান শরীরে কমাতে সাহায্য করে। বিজ্ঞানীদের অনুমান, অন্যান্য অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি ড্রাগের তুলনায় অনেক কম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যুক্ত ইটোলিজুম্যাব নভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণে হয়তো একই পদ্ধতিতে কাজ করে রোগীকে সুস্থ করে তুলবে। 


বায়োকনের এক্সিকিউটিভ চেয়ারপার্সন কিরন মজুমদার সাউ জানিয়েছেন, এই ড্রাগ ব্যাবহারে কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যুর হার যথেষ্ট কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। তাঁদের সহযোগী প্রতিস্থান কিউবার CIM ইটোলিজুম্যাব ব্যাবহার করে ভালো ফল পেয়েছে। তাদের পরীক্ষায় দেখা গেছে, শতকরা ৭৯.২ জন রোগী এই চিকিৎসায় ICU থেকে ফিরে এসেছেন ও আরোগ্য লাভ করেছেন। বায়োকন চেয়ারপার্সনের মতে, যে সমস্ত করোনারোগীর অবস্থা অ্যাকিউট রেস্পিরেটরি ডিস্ট্রেস সিনড্রোমের (ARDS) কারনে আশঙ্কাজনক, তাঁদের ক্ষেত্রে ইটোলিজুম্যাব ভীষণ ভালো কাজ করবে। হিউম্যান ট্রায়ালে দেখা গেছে, ইটোলিজুম্যাব ব্যাবহারে রক্তে অক্সিজেনের মাত্রাও যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, কোভিড-১৯ চিকিৎসায় মোট চার ডোজের ইনট্রাভেনাস ইঞ্জেকশান লাগে। প্রতিটি ইটোলিজুম্যাব ভায়ালের দাম পড়ে ৮০০০ টাকা।            

তবে, এই হিউম্যান ট্রায়ালকে কেন্দ্র করে চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীমহলে কিছু প্রশ্ন উঠেছে। প্রথমতঃ সম্পূর্ণ পরীক্ষা খুব অল্প সংখ্যক রোগীর উপর করা হয়েছে। খুব বড় গ্রুপে, বহু সংখ্যক রোগীর উপর পরীক্ষা চালালে আশানুরূপ ফল পাওয়া যেত কিনা তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। এছাড়াও, কোচিনের মেডিক্যাল ট্রাস্ট হসপিটালের বিখ্যাত হার্ট স্পেশালিস্ট ডঃ বরুন চেরুপারাম্বাতের মতে, ইটোলিজুম্যাব চিকিৎসাধীন কোন রোগীকেই ভেণ্টিলেশানে দিতে হয় নি। অথচ, ছোট কন্ট্রোল গ্রুপের অনেকেই ভেণ্টিলেশান সাপোর্টে ছিলেন। হয়তো বয়স এবং কো-মরবিডিটির নানা সমস্যায় দুটি গ্রুপের মধ্যে সামান্যতম পার্থক্য থাকা সম্ভব। আরও বেশী সংখ্যক মানুষের মধ্যে ট্রায়াল চালালে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কর্মরত বায়োকেমিস্ট ও নিউরো বিজ্ঞানী ডঃ বিশ্বরূপ ঘোষও এর জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। “এমন প্রচুর প্রমাণ রয়েছে যে কোভিদ-১৯ কিডনি, হার্ট এবং মস্তিষ্ককের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে বিশেষ করে যাদের আগে থেকে কিছু সমস্যা আছে। বয়সভেদে, লিঙ্গভেদে, এবং যাদের হার্ট, কিডনি, ডায়াবেটিস, ও স্নায়ুঘটিত সমস্যা থাকলে কি ফল হতে পারে ? বিভিন্ন রোগের সাথে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এবং কার্যকারিতা পরিমাপ করার জন্য ২০ জন মানুষের ওপর ট্রায়াল করে বোজা যায় না। ফেজ ৩ ক্লিনিকাল ট্রায়াল এর প্রয়োজন হয় ” ডঃ ঘোষ বলেছেন।

অবশ্য বায়োকন চেয়ারপার্সন এই বিতর্কের উত্তরে জানিয়েছেন, অত্যন্ত জরুরী করোনা পরিস্থিতিতে এবং রোগীর আশঙ্কাজনক অবস্থায় ইটোলিজুম্যাব ব্যাবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে, তাঁদের প্রকাশিত গবেষণাপত্রে সম্পূর্ণ পরীক্ষার বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।  

তথ্যসূত্রঃ

  1. Bughani U, Saha A, Kuriakose A, et al. T cell activation and differentiation is modulated by a CD6 domain 1 antibody Itolizumab [published correction appears in PLoS One. 2018 Jan 30;13(1):e0192335]. PLoS One. 2017;12(7):e0180088. Published 2017 Jul 3. doi:10.1371/journal.pone.0180088
  2. Srivastava A. Itolizumab in Psoriasis. Indian J Dermatol. 2017;62(4):418-421. doi:10.4103/ijd.IJD_467_16
  3. https://www.biocon.com/biocon_products_bio_BF_alzumab_pa.asp
  4. https://www.biocon.com/biocon_press_release_20200711.asp
  5. https://apps.who.int/trialsearch/Trial2.aspx?TrialID=RPCEC00000311
  6. Dogra S, Uprety S, Suresh SH. Expert Opin Biol Ther. 2017 Mar; 17(3):395-402. Epub 2017 Jan 25.
  7. Pai G, Pai AH. Case Rep Dermatol. 2017 May-Aug; 9(2):141-145. Epub 2017 Aug 23.
  8. Budamakuntla L, Shree-Lakshmi HV, Bansal A, Venkatarayaraju SK. Psoriasis (Auckl). 2019; 9:19-27. Epub 2019 May 3.

Write your comments

%d bloggers like this: