রাশিয়ার কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন আসছে কি চূড়ান্ত পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়াই ? আশঙ্কায় বিজ্ঞানীরা

Reading Time: 2 minutes

ডঃ শুভময় ব্যানার্জী, পিএইচডি, নিউক্র্যাড হেলথ ডেস্ক, আগস্ট ৪, ২০২০

বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমনের সাথে লড়াই করতে প্রয়োজন উপযুক্ত ভ্যাকসিন। সেই ভ্যাকসিন তৈরীর গবেষণায় সামিল পৃথিবীর সব দেশের গবেষক ও বিজ্ঞানীমহল। ব্লুমবার্গ সংবাদসংস্থার সূত্রে জানা গেছে রাশিয়া এই বছর অগাস্টের ১০-১২ তারিখের মধ্যেই তাদের তৈরী কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন আনতে চলেছে। তাদের দাবী, এই ভ্যাকসিন মানুষের ব্যবহারের জন্যে পৃথিবীর প্রথম অনুমোদিত নভেল করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন হতে চলেছে। সূত্রের তথ্য অনুযায়ী, মস্কোর গামালিয়া ইনস্টিটিউট এবং রাশিয়ান ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (RDIF) যৌথ উদ্যোগে খুব তাড়াতাড়ি ‘বিশেষ শর্তসাপেক্ষে’ ভ্যাকসিনের রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি (Conditional Registration) শুরু করতে চলেছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং সহকারী প্রধানমন্ত্রী তাতিয়ানা গোলিকোভা এক বৈঠকে এই কথা জানান।

নিউক্র্যাড হেলথ নিয়ে আসছে নিউক্র্যাড হেলথ হাব – বাংলায় এক নতুন স্টার্ট আপ এক বাঙালি বিজ্ঞানীর হাত ধরে।

রাশিয়াতে এই মুহূর্তে প্রায় ৮ লক্ষেরও বেশী মানুষ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত। বিজ্ঞানীমহলের চিন্তা, ভ্যাকসিনের প্রয়োজন আছে ঠিকই, উপযুক্ত হিউম্যান ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়া দ্রুত ভ্যাকসিন বাজারে আনলে তা মানুষের ব্যবহারের জন্যে নিরাপদ হবে না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গামালিয়া ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিন অগাস্টের মধ্যেই শর্তসাপেক্ষ রেজিস্ট্রেশন করতে চলেছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রায় ১৬০০ মানুষের উপর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়াই! রাশিয়ার ভ্যাকসিন আনার এই “অতি দ্রুত” মানিসিকতার বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশ থেকে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তোলা শুরু হয়েছেন। গামালিয়া ইনস্টিটিউট অবশ্য খুব তাড়াতাড়ি তাদের ফেজ-IIIক্লিনিক্যাল ট্রায়াল রাশিয়া, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে শুরু করতে চলেছে। তাদের দাবী তারা ফেজ-II ট্রায়াল মিলিটারি ভলেন্টিয়ারদের উপর সম্পন্ন করেছে। এখনো পর্যন্ত রাশিয়ার তরফ থেকে তাদের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সংক্রান্ত কোন তথ্য, গবেষণার ফলাফল কিছুই জানানো হয় নি এবং কোন গবেষণা পত্রেও তা প্রকাশ পায় নি।

রাশিয়ার স্বাস্থমন্ত্রী মিখেইল মুরাস্কো একটি বার্তায় জানিয়েছেন ভ্যাকসিন তৈরী হলেও তা প্রধানত চিকিৎসকদের কাছে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের আগেই পৌঁছে যাবে এবং এই বছরের শেষের দিকে তা হয়তো পৃথিবীর অন্যান্য দেশে পৌঁছবে। একটি সূত্রের তথ্য অনুযায়ী সময়ের আগেই গবেষণা শেষ করার জন্যে রাশিয়ার সরকারের তরফ থেকে গবেষক ও বিজ্ঞানীদের চাপ দেওয়া হচ্ছে, এই পরিস্থিতিতে কিভাবে সফল ও নিরাপদ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরী হবে তা নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন থাকবেই। RDIF প্রধান কিরিল মিট্রিএভ একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, প্রথম স্পুটনিক তৈরীতে রাশিয়া যেমন বিস্ময় জাগিয়েছিল, সেইরকম ভ্যাকসিন তৈরীর ক্ষেত্রেও রাশিয়াই আগে এগিয়ে থাকবে।

লক্ষ লক্ষ মানুষের সুস্থ জীবন নির্ভর করে যথাযোগ্য ভ্যাকসিনের উপর। এগিয়ে থাকার প্রতিযোগিতা নয়, কঠোর বৈজ্ঞানিক গবেষণার মাধ্যমে, যথাযত ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের মাধ্যমে যাচাই করতে হয় ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা। তাই এই রাশিয়ার ভ্যাকসিন নিয়ে বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা থাকছেই।

তথ্যসূত্রঃ 

  1. Chen WH, Strych U, Hotez PJ, Bottazzi ME. The SARS-CoV-2 Vaccine Pipeline: an Overview [published online ahead of print, 2020 Mar 3]. Curr Trop Med Rep. 2020;1-4. doi:10.1007/s40475-020-00201-6
  2. Iwasaki A, Yang Y. The potential danger of suboptimal antibody responses in COVID-19. Nat Rev Immunol. 2020;20(6):339-341. doi:10.1038/s41577-020-0321-6
  3. Jiang S. Don’t rush to deploy COVID-19 vaccines and drugs without sufficient safety guarantees. Nature. 2020;579(7799):321. doi:10.1038/d41586-020-00751-9
  4. Tu YF, Chien CS, Yarmishyn AA, et al. A Review of SARS-CoV-2 and the Ongoing Clinical Trials. Int J Mol Sci. 2020;21(7):2657. Published 2020 Apr 10. doi:10.3390/ijms21072657
  5. https://www.bloomberg.com/news/articles/2020-08-01/russia-plans-to-roll-out-mass-covid-19-vaccinations-from-october
  6. https://www.wsj.com/articles/russia-seeks-to-register-first-coronavirus-vaccine-in-august-11596047326
  7. https://www.reuters.com/article/us-health-coronavirus-russia-vaccine/russian-covid-19-vaccine-approval-imminent-source-says-idUSKCN24U1V9
বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন neucradheath@gmail.com

Write your comments

%d bloggers like this: