কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ব্যাবহৃত আইভারমেকটিন ড্রাগ কতোটা কার্যকরী?

Reading Time: 4 minutes

শুভময় ব্যানার্জী, পিএইচডি, নিউক্র্যাড হেলথ এর প্রতিবেদন, মে ৩১, ২০২১

জাপানের কিটাসাটো ইন্সিটিউটের বৈজ্ঞানিক ডঃ সাটোসি ওমুরা এবং আমেরিকার মার্ক ইন্সিটিউট অফ থেরাপিউটিক রিসার্চের বৈজ্ঞানিক ডঃ উইলিয়াম সি ক্যাম্পবেল ২০১৫ সালে আইভারমেকটিন ড্রাগ আবিস্কারের জন্যে নোবেল পুরস্কারে সম্মানিত হন। আইভারমেকটিন ড্রাগটি হোল ‘অ্যান্টি-হেলমিন্থিক’ শ্রেণীর রাসায়নিক যা  স্ট্রেপটোমাইসিন আইভারমেকটিনিয়াস (Streptomyces avermectiniu) নামের এক ছত্রাকের থেকে পাওয়া যায়। এই ড্রাগের দেহের আন্ত্রিক পরজীবীদের সংক্রমণ ও ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি প্রতিহত করার ক্ষমতা আছে। এছাড়া, গবেষণায় পাওয়া যায় ভাইরাস সংক্রমণকেও প্রতিরোধ করে এই আইভারমেকটিন। 

আইভারমেকটিনের ভাইরাস প্রতিরোধী ক্ষমতাঃ 

১) ইঁদুরের শরীরে সিউডোরেবিস ভাইরাস (PRV) সংক্রমণ প্রতিরোধ করে আইভারমেকটিন।

২) পোর্সাইন সার্কোভাইরাস (PCV2) আক্রান্ত শূকরের কলাকোষে ও সেরামে ভাইরাসের সংখ্যা কমায় এই ড্রাগ। 

৩) এডিস অ্যালবোপিকটাস মশার শরীরে থাকা  ডেঙ্গু ভাইরাস সংক্রমণ কমিয়ে দেয়। 

৪) ফ্ল্যাভিভাইরাস, আলফাভাইরাস, সিন্দবিস ভাইরাস সংক্রমণকে আইভারমেকটিন থামাতে পারে। 

৫) ইন-ভিট্রো সেল কালচার করে জিকা ভাইরাসের বিরুদ্ধে আইভারমেকটিনের অ্যান্টিভাইরাল কার্যকারিতা দেখা গেছে। 

 ৬) অস্ট্রেলিয়ার পিটার ডোহার্টি ইন্সিটিউট ফর ইনফেকশান অ্যান্ড ইমিউনিটির বৈজ্ঞানিক ডঃ কেলির গবেষণা করে দেখেছেন আইভারমেকটিন SARS-CoV-2 সংক্রমিত Vero/hSLAM  কোষে ভাইরাস আরএনএর পরিমান যথেষ্ট কমিয়ে দিতে সক্ষম। এই গবেষণা বিজ্ঞানীমহলে ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলেছে। অনেক দেশের চিকিৎসকরা এই এফডিএ অনুমোদিত ড্রাগ কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ব্যাবহার করা শুরু করেছেন। তবে, এই গবেষণার কিছু সীমাবদ্ধতা দেখা যায়। যেমন-

  • পুরো গবেষণার কাজ ইন-ভিট্রো সেল কালচার করে দেখা হয়েছে, ফলে পরীক্ষার বিভিন্ন শর্ত অনেকগুলিই কৃত্রিম ও নিয়ন্ত্রিত। 
  • বানরের দেহের থেকে প্রাপ্ত Vero/hSLAM কোষ একটি জেনেটিক্যালি এঞ্জিনিয়ার্ড কোষ। এতে SLAM (সিগনালিং লিম্ফোসাইটিক অ্যাকটিভেশান মলিকিউল) প্রোটিন বেশী প্রকাশ পায়, যা একটি মিজলস ভাইরাসের রিসেপটর। 
  • আইভারমেকটিনের অ্যান্টিভাইরাল কার্যকারিতা কোন ফুসফুসীয় কোষে দেখা হয় নি, যা কোভিড-১৯ চিকিৎসার অন্যতম শর্ত। 
  • গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফলে, আইভারমেকটিন ব্যাবহারে SARS-CoV-2 এর কমে যাওয়া আরএনএর পরিমান আর ভাইরাসের সংখ্যার পরিমানের অনুপাত দেখা হয় নি। 
  • পরীক্ষায় ব্যাবহৃত আইভারমেকটিনের পরিমান ৫ μM, যা সাধারন FDA অনুমোদিত ড্রাগের চেয়ে ৩৫ গুন বেশী! ফলে এই ড্রাগ কতোটা মানুষের দেহের পক্ষে নিরাপদ এবং কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা তা নির্ধারণ করা অত্যন্ত জরুরী। 

সুতরাং, আইভারমেকটিনের অ্যান্টি-ভাইরাল গুন থাকা সত্ত্বেও এর যথোপযুক্ত ব্যাবহারে সীমাবদ্ধতা আছে। এই ড্রাগ জলে তেমন দ্রবণীয় নয়, খাদ্যনালীতে এর শোষণমাত্রা কম অর্থাৎ ওরাল বায়ো-অ্যাভিলিবিলিটি অনেক কম ফলে সার্বিক ভাবে আইভারমেকটিনের একটি আদর্শ ড্রাগ হিসাবে কাজের পরিধি বেশ কিছুটা কম বলে বৈজ্ঞানিকদের অনুমান। যদিও গবেষণা চলছে, যাতে ন্যানোপার্টিকেলের সাহায্যে আইভারমেকটিনকে ফুসফুসীয় কোষের ভিতরে সহজে পৌছনো যায়। এই কাজে সফল হলে অবশ্যই কোভিড-১৯ প্যান্ডেমিকে মানুষের বিশেষ উপকার হবে। 

“একজন গবেষক বিজ্ঞানী হয়ে সাধারণ মানুষের কাছে বিজ্ঞান, গবেষণা ও স্বাস্থ্য সচেতনতা নিয়ে আসতে বদ্ধপরিকর – আপনার স্বাস্থ্য সচেতনতা আপনাকে বিপদের সময় পথ দেখাবে” – বিশ্বরূপ ঘোষ, নিউক্র্যাড হেলথ ফাউন্ডার । আমেরিকা প্রবাসী বাঙালি গবেষক বিজ্ঞানী বিশ্বরূপ ঘোষ তার স্টার্ট আপ নিয়ে আসছেন বাংলা তথা ইন্ডিয়াতে। খুব শীঘ্র নিউক্র্যাড হেলথ হাব এর ডিজিটাল ডাক্তার প্লাটফর্ম শুরু হবে। আপনাদের আশীর্বাদ কামনা করি।

আইভারমেকটিনের কাজের সম্ভাব্য আনবিক কৌশলঃ 

বহু আরএনএ ভাইরাস দেহকোষে সংক্রমণ ঘটিয়ে কোষের ইম্পোর্টিন আলফা ও বিটা (নিউক্লিয়ার এক্সপোর্টার প্রোটিন) এই দুই হেটেরো-ডাইমার প্রোটিন কমপ্লেক্সের সাথে ভাইরাল প্রোটিনকে যুক্ত করে নিউক্লিয়াসের মধ্যে প্রবেশ করে। আইভারমেকটিন এই ইম্পোর্টিন আলফা ও বিটা কমপ্লেক্সকে তৈরি হতে বাধা দেয়। ফলে ভাইরাল প্রোটিন আর নিউক্লিয়াসে ঢুকতে পারে না। যার জন্যে ভাইরাসের প্রতিলিপিকরন এবং সংখ্যা বৃদ্ধি যথেষ্ট কমে যায়। তবে, SARS-CoV-2 সংক্রমণ প্রতিরোধে এই আনবিক কৌশল আইভারমেকটিনের ক্ষেত্রে এক সম্ভাব্য অনুমান মাত্র। গবেষণায় এই কৌশলকে যাচাই করা এখনো বাকি। 

ভারতে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে আইভারমেকটিনের সাম্প্রতিক ব্যাবহারঃ 

ভারতে বর্তমানে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় বহুল পরিমানে আইভারমেকটিনের ব্যাবহার হচ্ছে। কিন্তু এই ড্রাগ করোনা রোগীর বিশেষ শারীরিক অবস্থায় ব্যাবহার করতে হয়। কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর যদি তীব্র কোভিড নিউমোনিয়া দেখা যায় (ফুসফুসে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের ফলে) তবেই এই ড্রাগ কার্যকরী হতে পারে। হায়েদ্রাবাদের যশোদা হসপিটালের বিখ্যাত ফুসফুসের রোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ বিঘ্নেশ নাইডু জানিয়েছেন, কোভিড-১৯ হবার সামান্য কিছুদিনের মধ্যে এই ড্রাগ ব্যাবহারে রোগীর দেহে বেশ কিছুটা ভাইরাস প্রতিরোধী ক্ষমতা তৈরি হয়। কিন্তু, কোভিড-১৯ এর উপসর্গ সহজে যায় না এবং মাঝারি উপসর্গে আইভারমেকটিনের সে রকম কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি। 

তবে, আইভারমেকটিন স্তন্যপায়ী প্রাণীর ক্ষেত্রে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পি-টাইপ এটিপিএজ উৎসেচকের ইনহিবিটার হিসাবে কাজ করে। ফলে, এই ড্রাগ ব্যাবহারে মানুষের দেহে কতোটা ঝুঁকি থেকে যায় তা গবেষণার দ্বারা খতিয়ে দেখতে হবে। এছাড়া, ডোজ, ড্রাগের নিরাপত্তা, আনবিক কৌশল ইত্যাদি জানার জন্যে আইভারমেকটিনের ফেজ-I ট্রায়াল শুরু করা খুবই জরুরী। \

হোয়াইট ফাঙ্গাস -সচেতনতার লক্ষ্যে কিছু কথা
প্রোনিং (Proning)
কোভিড রোগ সম্পর্কিত নতুন ব্লাক ফাঙ্গাস(Black Fungus)
ভ্যাকসিনেশন সেন্টারে কীভাবে রোগ এড়ানো যাবে
এই Covid-19 পরিস্থিতিতে অসাধু ব্যবসায়ী হতে সাবধান
করোনা ভাইরাসের ডাবল ভেরিয়েন্ট নিয়ে অযথা ভয় পাবেন না

তথ্যসূত্রঃ

  1. Formiga FR, Leblanc R, de Souza Rebouças J, Farias LP, de Oliveira RN, Pena L. Ivermectin: an award-winning drug with expected antiviral activity against COVID-19. J Control Release. 2021 Jan 10;329:758-761. doi: 10.1016/j.jconrel.2020.10.009. Epub 2020 Oct 7. PMID: 33038449; PMCID: PMC7539925.
  2. Mittal N, Mittal R. Inhaled route and anti-inflammatory action of ivermectin: Do they hold promise in fighting against COVID-19? Med Hypotheses. 2021 Jan;146:110364. doi: 10.1016/j.mehy.2020.110364. Epub 2020 Nov 5. PMID: 33246694; PMCID: PMC7644229.
  3. Jans DA, Wagstaff KM. The broad spectrum host-directed agent ivermectin as an antiviral for SARS-CoV-2 ? Biochem Biophys Res Commun. 2021 Jan 29;538:163-172. doi: 10.1016/j.bbrc.2020.10.042. Epub 2020 Oct 21. PMID: 33341233; PMCID: PMC7577703.
  4. Rakedzon S, Neuberger A, Domb AJ, Petersiel N, Schwartz E. From hydroxychloroquine to ivermectin: what are the anti-viral properties of anti-parasitic drugs to combat SARS-CoV-2? J Travel Med. 2021 Feb 23;28(2):taab005. doi: 10.1093/jtm/taab005. PMID: 33480414; PMCID: PMC7928734.
  5. Kaur H, Shekhar N, Sharma S, Sarma P, Prakash A, Medhi B. Ivermectin as a potential drug for treatment of COVID-19: an in-sync review with clinical and computational attributes. Pharmacol Rep. 2021 Jan 3:1–14. doi: 10.1007/s43440-020-00195-y. Epub ahead of print. PMID: 33389725; PMCID: PMC7778723.
  6. Ahmed S, Karim MM, Ross AG, et al. A five-day course of ivermectin for the treatment of COVID-19 may reduce the duration of illness. Int J Infect Dis. 2021;103:214-216. doi:10.1016/j.ijid.2020.11.191
  7. Heidary F, Gharebaghi R. Ivermectin: a systematic review from antiviral effects to COVID-19 complementary regimen. J Antibiot (Tokyo). 2020;73(9):593-602. doi:10.1038/s41429-020-0336-z
  8. Pandey S, Pathak SK, Pandey A, Salunke AA, Chawla J, Sharma A, Sharma S, Thivari P, Ratna HVK. Ivermectin in COVID-19: What do we know? Diabetes Metab Syndr. 2020 Nov-Dec;14(6):1921-1922. doi: 10.1016/j.dsx.2020.09.027. Epub 2020 Sep 28. PMID: 33032231; PMCID: PMC7521351.
  9. Pott-Junior H, Bastos Paoliello MM, Miguel AQC, da Cunha AF, de Melo Freire CC, Neves FF, da Silva de Avó LR, Roscani MG, Dos Santos SS, Chachá SGF. Use of ivermectin in the treatment of Covid-19: A pilot trial. Toxicol Rep. 2021;8:505-510. doi: 10.1016/j.toxrep.2021.03.003. Epub 2021 Mar 9. PMID: 33723507; PMCID: PMC7942165.

Write your comments

You may have missed

%d bloggers like this: