অ্যাভিফাভি, রেমডেসিভিয়ার এবং LY-CoV555 – আপডেট

Reading Time: 2 minutes

নিউক্র্যাড হেলথ বাংলা জুন 23, 2020

COVID-19 মহামারীতে সমগ্র বিশ্বের 9,354,326 জনেরও বেশি সংক্রামিত হয়েছেন ( জুনের 23 তারিখ পর্যন্ত) এবং 479,816 জনেরও বেশী জন প্রান হারিয়েছেন। COVID পজিটিভ দেশগুলির মধ্যে ভারত বর্তমানে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। বিশ্বজুড়ে এই মহামারী রুখে দেওয়ার জন্য চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা চব্বিশ ঘন্টা কাজ করছেন। তেনাদের নিরলস প্রচেষ্টার ফলে করোনার কবল থেকে পুনরুদ্ধারের হার আগের তুলনায় অনেক বেশি, পাশাপাশি মৃত্যুর হার কমেছে। আসুন বর্তমান পরিস্থিতি এই জুন মাসের কিছু গুরুত্বপূর্ণ খবর জেনে নিই।

রেমডেসিভিয়ার জরুরীভিত্তিতে ব্যবহারের অনুমোদন দেল ভারত:-

1 জুন, ভারতের ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল COVID-19 রোগীদের চিকিৎসার জন্য রেমডেসিভিয়ারের 5 দিনের কোর্স ব্যবহারের অনুমোদন দেয়ছেন। গিলিয়েড সায়েন্সে কর্তৃক প্রস্তুত এই অ্যান্টিভাইরাল ওষুধটি, অন্যান্য দেশের COVID-19 রোগীর মধ্যে ইতিবাচক ফলাফল দেখিয়েছে। মার্কিন ড্রাগ এন্ড ফুড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এটি ব্যাবহারের অনুমোদন দিয়েছেন। সংকটময় রোগীদের ক্ষেত্রে, এই ওষুধ ব্যবহারের পরে করোনার উপসর্গগুলো বা রোগ মুক্তির সময় অনেক কম হয়েছে।

রেমডেসিভিয়ার হ’ল ব্রড-স্পেকট্রাম অ্যান্টিভাইরাল ফাংশন সহ একটি নিউক্লিওসাইড অ্যানালগ প্রোড্রাগ। হিউম্যান ট্রায়াল চলাকালীন এটি ইবোলা, মারবার্গ, MERS and SARS ইত্যাদি ভাইরাসের বিরুদ্ধেও খুব ভালো এফেক্ট দেখিয়েছে। এপ্রিল 19, 2020-তে গিলিয়েড সায়েন্সেস এর তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল দিয়ে শুরু করেছিল।

http://www.neucrad.com

অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ অ্যাভিফাভির রাশিয়ায় আশায় আলো দেখাচ্ছে:-

রাশিয়া সম্প্রতি কোভিড -19 রোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ, অ্যাভিফাভির ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। ভারতের কাছেও এটি সুসংবাদ, কারন এটি ইনফ্লুয়েঞ্জা ড্রাগের (ফ্যাভিপিরাবির) অনুরূপ, যা নিয়ে ইতিমধ্যেই মুম্বাইয়ের একটি ফার্মাসিউটিক্যাল গ্লেনমার্কের ল্যাবরেটরিতে তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলছে। রাশিয়ান বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস SARS-CoV-2 ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে অ্যাভিফাভির অন্যতম শক্তিশালী ওষুধ। তারা এই ড্রাগটি নিয়ে একটি ক্লিনিকাল ট্রায়াল করেছেন, যেখানে দেখা যাচ্ছে ‌অনেক রোগীই সফলভাবে সেরে উঠছেন।
এটি বর্তমানে RDIF এবং ChemRar গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে। রাশিয়ান ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (RDIF), জুন মাসের মধ্যে বিভিন্ন হাসপাতালগুলিতে এই ওষুধের 60000 ডোজ সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বানিভাইরাস, আরনাভাইরাস এবং ফিলোভাইরাস জাতীয় ভাইরাল সংক্রমণের বিরুদ্ধে কার্যকরিতা দেখানোয় সম্প্রতি ফ্যাভিপিরাবির, চিকিৎসকমহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। চিকিৎসকরা প্রায়শই থ্রোম্বোসাইটোপেনিয়া সিন্ড্রোমে (SFTS) আক্রান্ত জ্বরজনিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য এই গ্রুপের ওষুধ লিখে দেন। এটি হেমারেজিক জ্বর এবং ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সমস্ত স্ট্রেনের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতিবদ্ধভাবে কাজ করে। COVID-19 রোগীদের দেহে অ্যাভিফাভির RNA-ডিপেন্ডেন্ট RNA polymerase (RdRP) এনজাইমটি তৈরী হতে বাধা দেয় বলে মনে করা হয়। RdRP ভাইরাল রেপ্লিকেশনের জন্য অত্যাবশ্যক। যদি এই ড্রাগটি ক্লিনিকাল ট্রায়ালে সফল হয়, তবে এটি COVID-19 রোগীদের জন্য অত্যন্ত সুখবর হবে।

এলি লিলি SARS-COV-2 ভাইরাসের বিরুদ্ধে একটি মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি তৈরির প্রচেষ্টা করছে:-

বর্তমান পরিস্থিতিতে বিজ্ঞান মহলের বিশ্বাস করনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে টিকা আবিষ্কারের পাশাপাশি, সংক্রমণের বিরুদ্ধে উপযুক্ত চিকিৎসা পদ্ধতিও প্রয়োজন। এলি লিলি (আমেরিকান ফার্মাসিউটিকাল কোম্পানি) ও ভ্যাঙ্কুভারের একটি ফার্মাসিউটিক্যাল এবিসেলেরা‌ একসাথে SARS-Cov-2 ভাইরাসের বিরুদ্ধে একটি মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি তৈরি করতে কাজ করছে। মাত্র তিনমাস আগেই করোনার কড়ল থেকে বেঁচে ফেরা এক রোগীর দেহ থেকে স্যাম্পল নিয়ে তৈরী করা হচ্ছে এই অ্যান্টিবডি।

এর নাম দেওয়া হয়েছে LY-CoV555 , বর্তমানে এর প্রাথমিক ধাপের ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলছে। এটি SARS-CoV-2 ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনকে প্রভাবিত করে এবং হোস্টের শরীরে তাদের সংখ্যা বৃদ্ধি প্রতিহত করে। জুনের শেষে থেকে বিজ্ঞানীরা ওষুধের দ্বিতীয় ধাপের ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করবেন।
যদি এই ট্রায়ালগুলি সফল হয়, তাহলে ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থাটি অ্যান্টিবডিটির ব্যাপক উৎপাদন শুরু করবে। যে সমস্ত মানুষের দেহের প্রতিরোধে ক্ষমতা দুর্বল তাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কর্মক্ষেত্রে এবং বাড়ির বাইরে মাস্ক ব্যবহার করুন। সামাজিক দূরত্ব অনুশীলন করুন এবং সুরক্ষিত থাকুন। বিশ্বরূপ ঘোষ, পিএইচডি, নিউক্র্যাড হেলথ ফাউন্ডার, গবেষক বিজ্ঞানী, আমেরিকায় কর্মরত।

Write your comments

%d bloggers like this: