জুন 24, 2024

এক অভিনব মডেলের মাধ্যমে সিমলন আটঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে স্বল্পমূল্যে নিউক্র্যাড হেলথ প্যাথলজি সার্ভিসেস নিয়ে এসেছে

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

Reading Time: 2 minutes

নিউক্র্যাড হেলথ হাব ইন্ডিয়া, ১২ই জুন, ২০২৩

আপনারা প্রতিদিন শহরের বড় বড় কর্পোরেট কোম্পানির প্রচুর প্রমোশন দেখে থাকেন দেশের প্রথম শ্রেণীর কর্পোরেট মিডিয়ার মাধ্যমে I আপনি তাঁদের কথা শোনেন,চর্চা করেন I প্রবাসী বিজ্ঞানী বিশ্বরূপ ঘোষ ও মছলন্দপুর নিবাসী অনুপ ঘোষের প্রচেষ্টায় তাদের জন্মস্থানকে (মছলন্দপুর, কালনা, পূর্ববর্ধমান) ঘিরেই ধাপে ধাপে গড়ে তুলছেন নিউক্র্যাড হেলথ হাব নামক স্টার্টআপটি l এই গ্রাম থেকেই বাংলাব্যাপী টেলিমেডিসিন প্লাটফর্মও নিয়ে এসেছে নিউক্র্যাড হেলথ হাব। বাংলার গ্রাম থেকে শহরে নিউক্র্যাড হেলথের টেলিমেডিসিন পরিষেবা ছড়িয়ে পড়ছে। বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে গড়ে উঠছে টেলিমেডিসিন ফ্রাঞ্চিসেস যেখানে রোগীরা টেকনোলজি সাপোর্ট পাবেন।

সিমলন আটঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে স্বল্পমূল্যে প্যাথলজি সার্ভিসেস একমাত্র নিউক্র্যাড হেলথ প্যাথলজি সেন্টারে পাবেন। কিন্তু প্রশ্ন হোলো কিভাবে সম্ভব ?
নিউক্র্যাড হেলথ এক অভিনব মডেলের মাধ্যমে স্বল্পমূল্যে প্যাথলজি সার্ভিসেস নিয়ে এসেছে l রোগীরা বাজার মুল্য থেকে অনেক কমে পরিষেবা পাচ্ছেন l গুণগত মান বজায় রেখে অভিজ্ঞ প্যাথলজি টেকনিশিয়ান দিয়ে বেশিরভাগ পরীক্ষা ল্যাবেই করা হয় l গ্রামীণ প্যাথলজি সার্ভিসের বেশিরভাগ আজও স্যাম্পল কালেক্টরের ওপর নির্ভর করে। গুণগতমান নিয়ে সংশয় থেকেই যায়। যেহেতু এদের নিজেদের কোনো লাইসেন্সড প্যাথলজি ল্যাব থাকে না, তারা অন্য কোনো ল্যাব থেকে টেস্টিং করে থাকে। একটা রেফারেন্স থেকে স্যাম্পল কালেক্ট করতেও আজকাল প্রফিট শেয়ার করতে হয় তাদেরকে। অন্য ল্যাব থেকে রিপোর্ট করতেও একটা খরচ আছে। সার্ভিসে নিজের প্রফিট রাখতে হচ্ছে। অনেক সময় তাদেরকে রোগীদের আকর্ষণীয় ছাড়ও দিতে হয়। তাই রোগীদের সার্বিক প্যাথলজি টেস্টিং খরচ অনেক বেড়ে যায়। গুণগত মান বজায় রেখে রোগীদের খরচ কমাতেই নিউক্র্যাড প্যাথল্যাব নতুন মডেল নিয়ে এসেছেন। গতানুগতিক রেফারেন্স ও স্যাম্পল কালেক্টরের বিভিন্ন হাত বদলের প্রথা ভেঙেই এই নতুন মডেলে অনেক কম খরচে প্যাথলজি টেস্টিং করা সম্ভব হচ্ছে নিউক্র্যাড প্যাথল্যাবে l “মূল্যবোধের সঙ্গে কম খরচে স্বাস্থ্য পরিষেবা সাধারণ মানুষদের জন্য গড়ে তুলতে আমরা বদ্ধপরিকর” – বলেছেন বিশ্বরূপ ঘোষ, পিএইচডি, বিজ্ঞানী এবং কো ফাউন্ডার অফ নিউক্র্যাড হেলথ হাব ইন্ডিয়া l

কম খরচে সাধারণ মানুষের মধ্যে পরিষেবা পৌঁছে দেবার উদ্দেশ্যে নিউক্র্যাড প্যাথল্যাব নিয়ে এসেছে বিশেষ প্যাথল্যাব ফ্যামিলি কার্ড, ডায়াবেটিস মনিটরিং কার্ড এবং ছাত্র-ছাত্রী সাপোর্ট প্রোগ্রাম। ফোন করে বিশদে জানতে পারেন।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ এর সমীক্ষা অনুযায়ী ভারতে এখন প্রায় ১০ কোটি মানুষ ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত l ডায়াবেটিস মনিটরিং কার্ড সংগ্রহ করুন। স্বাস্থ্য সচেতনার লক্ষ্যে ও নিউক্র্যাড প্যাথলজি ল্যাবের সার্ভিস এলাকার সকলের কাছে পৌঁছানোর লক্ষ্যে, বিনামূল্যে আপনি প্রথম সুগার টেস্টিং ( ফাস্টিং এবং পিপি ) করতে পারবেন l পরবর্তীকালে থাকছে বিশেষ ছাড়। তাই দেরি না করে নিউক্র্যাড প্যাথল্যাবকে আপনাকে পরিষেবা দেবার সুযোগ করে দিন।

নিউক্র্যাড হেলথ হাব ইন্ডিয়া একটি স্টার্ট আপ কোম্পানি, মিনিস্ট্রি অফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স এ রেজিস্টার্ড!!