mRNA-1273 ভ্যাক্সিন মানুষের দেহে প্রাথমিক পর্যায়ের পরীক্ষায় সফল

Reading Time: 3 minutes

নিউক্র্যাড হেলথ বাংলা

করোনা পরিস্থিতিতে যখন টালমাটাল গোটা দুনিয়া, তখন ম্যাসাচুসেটসের মডার্ণা নামক বায়োটেকনোলজি কোম্পানি দ্বারা আবিষ্কৃত কোভিড-১৯ এর ভ্যাক্সিন করোনা ভাইরাসের পরীক্ষামূলক পরীক্ষায় চমকপ্রদ ফলাফল দেখিয়েছে। ২০২০ এর ১৮ই মে একটি বৈজ্ঞানিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয় যে, এই কোম্পানির দ্বারা প্রস্তুত ভ্যাক্সিন টি ২৫ মাইক্রোগ্ৰাম এবং ১০০ মাইক্রোগ্ৰাম ডোজে ৮ জন ব্যক্তির উপর প্রয়োগ করে দেখা গিয়েছে যে তারা ভাইরাসটির বিরুদ্ধে যথাযথ অ্যান্টিবডি পর্যাপ্ত পরিমাণে তৈরী করতে সক্ষম। পরীক্ষার ফলানুসারে দেখা গেছে, ভ্যাক্সিনটি প্রয়োগের ফলে যে পরিমাণ অ্যান্টিবডি দেহের মধ্যে তৈরী হয়; তা যে কোনো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের সেরে ওঠার পর তাদের দেহে তৈরী হওয়া অ্যান্টিবডির পরিমাণের সমান বা তার চেয়েও বেশি। বলা বাহুল্য, এমন পরিস্থিতিতে ভ্যাক্সিনটির প্রয়োগে প্রাথমিকnনিরাপত্তা প্রতিষ্ঠা করা একটি দৃষ্টান্তমূলক সাফল্য। যদিও একথা বলাই যায় যে এই সমস্ত গবেষণা প্রাথমিক স্তরে সফল হলেও ভ্যাক্সিনটি সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাতে এখনও বর্ষাধিক অপেক্ষা করতে হবে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার ফলাফলের ওপর এখন সারা বিশ্ব তাকিয়ে আছে।

প্রাথমিক পর্যায়ের পরীক্ষায় মডার্ণা ভ্যাক্সিন mRNA-1273 সফল:

মডার্ণায় কার্যরত বিজ্ঞানীরা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকটিয়াস ডিসিসেস (NIAID) এর সহযোগিতায় ৪৫ জন ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়স অবধি স্বেচ্ছাসেবী মানুষের দেহে mRNA-1273 ভ্যাক্সিনটি প্রাথমিক ভাবে প্রয়োগ করেন। চলতি বছরের ১৬ই মার্চ বিজ্ঞানীরা ভ্যাক্সিনটির প্রথম ডোজ একজন স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে প্রয়োগ করে। এরপর ৮ জনের শরীরে ২৫ মাইক্রোগ্ৰাম ও ১০০ মাইক্রোগ্ৰাম এর দুটি ডোজ এবং ২৫০ মাইক্রোগ্ৰামের একটিমাত্র ডোজ প্রয়োগ করা হয়। ভ্যাক্সিনের অ্যান্টিবডি তৈরি হওয়া পর্যন্ত বেশ কিছুদিন সময় অপেক্ষা করার পর ৪৩তম দিনে ২৫ মাইক্রোগ্ৰাম ও ১০০ মাইক্রোগ্ৰামের এবং ২৯তম দিনে ২৫০ মাইক্রোগ্ৰামের ডোজের জন্য তাদের রক্তে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিবডি তৈরী হয়।

নিউক্র্যাড স্বাস্থ্য কথা – সুস্থ পরিবার, সুস্থ সমাজ । আপনাদের সকলকে স্বাগত জানাই । নিউক্র্যাড হেলথ পড়ুন আর স্বাস্থ্য বিজ্ঞান তথ্য সংগ্রহ তে এগিয়ে থাকুন ! শেয়ার করে আমাদের সমাজের সচেনতা বাড়াতে সহযোগিতা করুন ।

mRNA-1273 ভ্যাক্সিন প্রয়োগে প্রতিক্রিয়া :

২৫ মাইক্রোগ্ৰাম ও ১০০ মাইক্রোগ্ৰাম ডোজের mRNA-1273 ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করা ব্যক্তিদের সকলেই সুস্থ ও স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছেন এবং তাদের কারোরই শরীরে কোনোরকম বিপরীত প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। কেবলমাত্র একজনের শরীরেই ইমুনাইজেশন্ এর জায়গায় গ্ৰেড ৩ erythema (redness) দেখা যায়। অপরদিকে ২৫০ মাইক্রোগ্ৰাম ডোজের mRNA-1273 ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করা ব্যক্তিদের মধ্যে ৩ জনের শরীরে কিছু ব্যতিক্রম লক্ষণ দেখা গিয়েছে। যদিও এই সব উপসর্গ গুলির সবকটিই সাময়িক এবং সময়ের সাথে এগুলি কয়েকদিনের মধ্যেই অবলুপ্ত হয় এবং ভ্যাক্সিন প্রাপ্ত মানুষদের শরীরে কোনোরকম গ্ৰেড ৪ ইনফেকশন্ দেখা যায়নি।
বর্তমানে বিজ্ঞানীরা দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায় এর গবেষণার জন্য উন্মুখ। দ্বিতীয় পর্যায়ে বিজ্ঞানীরা দুটি ডোজ লেভেল যথা ৫০ মাইক্রোগ্ৰাম ও ১০০ মাইক্রোগ্ৰাম এবং তৃতীয় পর্যায়ে তা ২৫ মাইক্রোগ্ৰাম ও ১০০ মাইক্রোগ্ৰাম ডোজে প্রয়োগের পরিকল্পনা করেছেন। তৃতীয় পর্যায়ের সমীক্ষা শুরু হতে পারে চলতি বছরের জুলাই মাসে।

http://www.neucrad.com

মডার্ণা, ম্যাসাচুসেটস্ এর একটি ভ্যাক্সিন প্রস্তুতকারী সংস্থা, যা দীর্ঘদিন যাবৎ সংক্রামক রোগ সৃষ্টিকারী ভাইরাসের ভ্যাক্সিন, সমগ্ৰ মানবজাতিকে উপহার দিয়েছে। উক্ত সংস্থাটি করোনা ভাইরাস ছাড়াও Human metapneumovirus (hMPV), Respiratory syncytial virus (RSV) এবং Influenza H7N9 (mRNA-1851) ভ্যাক্সিন প্রস্তুতকরণে উদ্যত। মডার্ণার বিজ্ঞানীদের সাথে ভ্যাক্সিন রিসার্চ সেন্টার (VRC), NIAID এর বিজ্ঞানীরা এই mRNA-1273 ভ্যাক্সিনের SARS-CoV-2 ভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা পরীক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন। আমেরিকার ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন্ (FDA), ৬ই মে ভাইরাসটির প্রথম পর্যায়ের গবেষণা পর্যবেক্ষণ করেন এবং তার আগামী পর্যায়ের গবেষণার ছাড়পত্র দেন।

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত আরও তথ্য জানতে সঙ্গে থাকুন এবং দেখতে থাকুন নিউক্র্যাড হেলথ্ বাংলা।

References:

Moderna Announces Positive Interim Phase 1 Data for its mRNA Vaccine (mRNA-1273) Against Novel Coronavirus

বায়োকেমিস্ট ও নিউরোসায়েন্টিস্ট ডঃ বিশ্বরূপ ঘোষ (নিউক্র্যাড এলএলসি এবং নিউক্র্যাড হেলথ্ ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা) বর্তমানে আমেরিকায় কর্মরত ।

কোভিড ১৯ মহামারী চলাকালীন কীভাবে মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নেবেন?
COVID-19 মহামারী চলাকালীন গর্ভবতী মহিলাদের কীভাবে নিজের যত্ন নেওয়া উচিত?
COVID-19 ও মানসিক স্বাস্থ্য – সঙ্গে মনোবিদ ডাঃ তনয় মাইতি, প্রবাসী বিজ্ঞানী উৎস ভাদুরী ও বিশ্বরূপ ঘোষ
BCG ভ্যাকসিন ও COVID-19
বাদুড়ের দেহে ভাইরাস এর সংক্রমণ হয় না কেন?
জার্মানি থেকে বিশেষ বার্তা – সঙ্গে প্রবাসী বাঙালী বিজ্ঞানী রাজীব সরকার ও বিশ্বরূপ ঘোষ। করোনা ভাইরাস

Write your comments

%d bloggers like this: