নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মানুষের জিনের বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভরশীল -গবেষণা

Reading Time: 3 minutes

শুভময় ব্যানার্জী, পিএইচডি, নিউক্র্যাড হেলথ এর প্রতিবেদন, ফেব্রূয়ারি ১৬, ২০২১

বিশ্ব জুড়ে ঘটে চলা কোভিড-১৯ প্যান্ডেমিকে যে সমস্ত মানুষ আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন, তাঁদের মধ্যে বয়স্ক মানুষের সংখ্যা অনেক বেশী। এছাড়া, যাদের ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, ফুসফুসের অসুখ ইত্যাদি জটিলতা দেখা গিয়েছে, সেই সব কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগীরা ‘কো-মরবিডিটি’ এর কারনে প্রান হারিয়েছেন। সম্প্রতি, হিউম্যান জেনেটিক্স গবেষণায় খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে একটি চাঞ্চল্যকর বিষয়, সেটি হোল, প্রতিটি মানুষের জিনগত প্রকারভেদ ও তাদের বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভর করে নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হার ও তীব্রতা।

জেনেটিক ভ্যারিয়েন্ট ও কোভিড-১৯:    

বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর অনেকের ক্ষেত্রেই কোন নির্দিষ্ট রোগ উপসর্গ দেখা যায় না, কিছু মানুষের ক্ষেত্রে সামান্য উপসর্গ প্রকাশ পায়। এই সব রোগীরা হলেন ‘অ্যাসিম্পটোম্যাটিক’ শ্রেণীর। আবার কিছু মানুষের ক্ষেত্রে রোগ উপসর্গ ও অসুস্থতা ভয়াবহ আকার নেয়। সুতরাং, এই ঘটনা কি মানুষের নিজের জিন বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভর করে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে বিজ্ঞানীরা গবেষণা করেছেন মানুষের নির্দিষ্ট ‘জেনেটিক ভ্যারিয়েন্ট’ ও নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ, রোগ উপসর্গ প্রকাশের মধ্যে কোন সংযোগ আছে কিনা তা আবিষ্কার করার জন্যে। এই গবেষণায় ব্যাবহার করা হয় “জিনোম ওয়াইড অ্যাসোসিয়েশান স্টাডি” (GWAS)। এতে, ইউরোপের বিভিন্ন প্যান্ডেমিক এপিসেন্টারের ১,৯৮০ জন করোনা রোগীর থেকে মোট ৮৫,৮২,৯৬৮টি ‘সিঙ্গল নিউক্লিওটাইড পলিমরফিজম’ (SNPs) চিহ্নিত করা হয়। ।  তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, কোন একটি-দুটি জিন কোভিড-১৯ অসুস্থতার সাথে জড়িত নয়, বরং এই ঘটনার পিছনে আছে বহু জিন, যাদের ‘মাল্টি-জিন ক্লাস্টার’ বলে উল্লেখ করা হয়। মানুষের তৃতীয় ক্রোমোজোমে এই ধরনের মাল্টি-জিন ক্লাস্টার শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে LZTFL1 (Leucine Zipper Transcription Factor Like 1) জিন-বৈশিষ্ট্য ফুসফুসের কোষে প্রকাশ পায়। এছাড়া, SIT1 (sodium–imino acid transporter 1) জিনের কাজ জানা গেছে যা কোভিড-১৯ রোগ সংক্রমণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। SIT1 জিন তৈরি করে এক বিশেষ প্রোটিন যার নাম- SLC6A20। এই প্রোটিন ফুসফুসীয় কোষের রিসেপ্টর ‘অ্যাঞ্জিওটেন্সিন-কনভার্টিং এনজাইম-২’ এর সাথে যুক্ত হতে পারে এবং করোনা সংক্রমণে বিশেষ ভূমিকা নেয়। মাল্টি-জিন ক্লাস্টারের বেশ কিছু জিন C-C এবং CXC পরিবারের কেমোকাইন রিসেপ্টর তৈরিতে সাহায্য করে। শরীরে তৈরি হওয়া কেমোকাইন এই রিসেপ্টারে যুক্ত হয়ে রোগ সংক্রমণের সময়ে ইমিউন সিস্টেমকে উদ্দীপিত করে বিশেষ ভূমিকা নেয়। ফলে এই রিসেপ্টরের কার্যকারিতা পরিবর্তিত হলে, রোগ সংক্রমণের মাত্রাও কম-বেশী হতে পারে। গবেষণায় ধরা পড়েছে, একটি বিশেষ SNP, যেটিকে বৈজ্ঞানিকরা ‘rs11385942’ নাম দিয়েছেন। দেখা গেছে এই পলিমরফিজম থাকলে, CXCR6 কেমোকাইন ও SLC6A20 প্রোটিন ঠিকভাবে কাজ করতে পারে না।  

নিউক্র্যাড হেলথ নিয়ে আসছে নিউক্র্যাড হেলথ হাব – বাংলায় এক নতুন স্টার্ট আপ ,
এক বাঙালি বিজ্ঞানীর হাত ধরে। নিউক্র্যাড হেলথ হাব এর এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ প্রোগ্রাম এ কোনো পুঁজি না লাগিয়ে অংশ গ্রহণ করতে অথবা জানতে হোয়াট’স আপ করুন +917001105893

অন্যান্য পলিমরফিজম ও কোভিড-১৯ সংক্রমণে তাদের গুরুত্বঃ 

কোভিড-১৯ রোগ সংক্রমণে ABO রক্তের গ্রুপ বিশেষ ভাবে জড়িত। এই গ্রুপে ‘rs657152’ পলিমরফিজম থাকায়, দেখা যায় ‘A’ গ্রুপের মানুষের বেশী সংক্রমণ ঘটে আর ‘O’ গ্রুপের মানুষদের সংক্রমণ প্রবনতা সবচেয়ে কম! আফ্রিকান এবং আফ্রিকান-আমেরিকান জনগোষ্ঠীর মানুষের X-ক্রোমোজোমে প্রাপ্ত ‘p.Arg514-Gly’ পলিমরফিজমের জন্যে ACE2 জিনের কার্যকারিতা ব্যহত হয়, ফলে কোভিড-১৯ রোগ সংক্রমণের সময় হৃদপিণ্ড ও ফুসফুসের শারীরবৃত্তীয় কাজের নানা জটিলতা দেখা দেয়।  এছাড়া, ১৯ নম্বর ক্রোমোজোমে পাওয়া গেছে ‘rs429358-C-C (e4e4)’ পলিমরফিজম, যা ApoE জিনের কার্যকারিতাকে প্রভাবিত করে এবং করোনা সংক্রমণের পরে রোগীর অসুস্থতা প্রবল করে তোলে, বিশেষত যাদের ডায়াবেটিস, হৃদযন্ত্রের অসুখ ও ডিমেনশিয়া আছে। কোভিড-১৯ সংক্রমণে ক্যান্সার রোগীদের সংক্রমণ প্রবনতা বৃদ্ধি পায়, এর জন্যে দায়ী ক্রোমোজোম ২১শে থাকা ‘p.Val160Met (rs12329760)” পলিমরফিজম। এর ফলে TMPRSS2 জিনের কাজ ব্যাহত হয়। 

উপরের গবেষণায় একটি ব্যাপার স্পষ্টভাবে প্রমানিত সেটা হোল, কোভিড-১৯ রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধের চিকিৎসায় রোগীর জেনেটিক প্রোফাইল দেখা অত্যন্ত জরুরী। প্রতিটি মানুষের দেহের শারীরবৃত্তীয় কার্যকলাপ তার ক্রোমোজোমে থাকা জিনের দ্বারা প্রভাবিত। ফলে জিনের গঠন, মিউটেশান ও পলিমরফিজম জনিত পরিবর্তন দেখে তবেই অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ এমনকি ভ্যাকসিন নেবার পরামর্শ দেওয়া উচিত।  

Subscribe Bengali YouTube Channel: Neucrad Health নিউক্র্যাড হেলথ Bangla
Subscribe Bengali YouTube Channel: Neucrad Health নিউক্র্যাড হেলথ Bangla
May be an image of 2 people and text

তথ্যসূত্রঃ

  1. Hu J, Li C, Wang S, Li T, Zhang H. Genetic variants are identified to increase risk of COVID-19 related mortality from UK Biobank data. Preprint. medRxiv. 2020;2020.11.05.20226761. Published 2020 Nov 9. doi:10.1101/2020.11.05.20226761
  2. Schmiedel BJ, Chandra V, Rocha J, et al. COVID-19 genetic risk variants are associated with expression of multiple genes in diverse immune cell types. Preprint. bioRxiv. 2020;2020.12.01.407429. Published 2020 Dec 2. doi:10.1101/2020.12.01.407429
  3. https://humgenomics.biomedcentral.com/articles/10.1186/s40246-020-00290-4
  4. LoPresti M, Beck DB, Duggal P, Cummings DAT, Solomon BD. The Role of Host Genetic Factors in Coronavirus Susceptibility: Review of Animal and Systematic Review of Human Literature. Preprint. medRxiv. 2020;2020.05.30.20117788. Published 2020 Jun 3. doi:10.1101/2020.05.30.20117788
  5. Elhabyan A, Elyaacoub S, Sanad E, Abukhadra A, Elhabyan A, Dinu V. Virus Res. 2020 Nov; 289:198163. Epub 2020 Sep 9.
  6. Smatti MK, Al-Sarraj YA, Albagha O, Yassine HM. Front Genet. 2020; 11:578523. Epub 2020 Oct 2.

Write your comments

%d bloggers like this: