দেখা দিয়েছে নতুন করোনা ভাইরাস স্ট্রেনের সংক্রমণ – আপনার প্রশ্নের উত্তর পাবেন

Reading Time: 4 minutes

শুভময় ব্যানার্জী, পিএইচডি, নিউক্র্যাড হেলথ এর প্রতিবেদন, জানুয়ারী ২০, ২০২১

সেন্টার ফর ডিসিস কনট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশানের বৈজ্ঞানিক ডঃ হেনরি ওয়ালকে জানিয়েছেন যে করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের বিবর্তন ও সংক্রমণ শুরু হয়েছে। বিষয়টি এই কারনে আশঙ্কাজনক যে আমরা ইতিমধ্যেই করোনা অতিমারির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি, বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে, বহু মানুষ এখনো আক্রান্ত। যদিও, করোনা ভাইরাসের বেশ কিছু ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়েছে, কিছু দেশে তাদের ব্যাবহারও শুরু হয়েছে, কিন্তু এখনো জানা যায়নি তাদের কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে কিনা এবং বাস্তব সংক্রমণে সেগুলি সত্যি কার্যকরী হচ্ছে কিনা। এই অবস্থায়, করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের আবির্ভাব বিশ্বে মানুষের কাছে চিন্তার কারন হয়ে উঠছে। এই আলোচনায় আমরা জেনে নেব, কিভাবে মিউটেশানের এই করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের উৎপত্তি হোল এবং কিভাবেই বা সেটি সংক্রমণ ঘটাচ্ছে।    

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ

২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে, লন্ডনে করোনা ভাইরাসের নতুন এক ভ্যারিয়েন্টের দেখা মেলে। শনাক্ত করে এটির নাম দেওয়া হয় বি.১.১.৭। এটি এতো দ্রুত সংক্রমণ ছড়িয়েছে, যে সেই মাসে শহরের এক চতুর্থাংশ এবং বছরের শেষে প্রায় দুই তৃতীয়াংশ মানুষ এই নতুন ভ্যারিয়েন্টের দ্বারা সংক্রমিত হয়। বৈজ্ঞানিকদের গবেষণা অনুযায়ী, এই ভ্যারিয়েন্ট অত্যন্ত সহজে এবং দ্রুততার সাথে সংক্রমণ ঘটাতে সক্ষম। এখনো পর্যন্ত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আটটি শহরে এবং ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জার্মানি, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, চীন, ভারত, ব্রাজিল সহ তেত্রিশটি দেশে এই ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি শনাক্ত করা গেছে।

আরও একটি ভ্যারিয়েন্টের দেখা মিলেছে সাউথ আফ্রিকাতে। যার নাম হোল ৫০১.ভি২। এই স্ট্রেনের সংক্রমণ ক্ষমতা মারাত্মক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের করোনাভাইরাস টাস্কফোর্স জানিয়েছে, এই স্ট্রেনের দ্বারা সংক্রমণ ঘটলে রোগীর অসুস্থতার হার অনেকগুন বেড়ে যায়।  টাস্কফোর্সের বৈজ্ঞানিক ডঃ অ্যান্থনি ফাউসি জানিয়েছেন, এই  ৫০১.ভি২ স্ট্রেনটি ইতিমধ্যেই আমেরিকায় দেখা গেছে। 

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্টের বিশেষ মিউটেশান

কোভিড-১৯ এর জন্যে দায়ী SARS-CoV-2 ভাইরাসের মিউটেশান খুব ধীরগতির, সেন্টার ফর ডিসিস কনট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশানের গবেষণা অনুযায়ী প্রায় দুই সপ্তাহে এদের জিনোমে একটি নতুন মিউটেশান  দেখা যায়। ব্রিটেন ও আমেরিকায় যে ভ্যারিয়েন্টেগুলির দেখা পয়া গেছে, তাদের মধ্যেও বিভিন্ন মিউটেশান দেখা যায়।

বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান বলছে, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টেগুলির থেকে শনাক্ত ২৩টি মিউটেশানের মধ্যে ১৭টির বিশেষ পরিবর্তন হয়েছে। আশ্চর্যের বিষয় হোল, মিউটেশানগুলি বেশীরভাগ, ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনের জিনে দেখা গেছে। এখন, আমরা দুইটি বিশেষ প্রকার মিউটেশানের কথা আলোচনা করবো।  

১) একটি মিউটেশান হোল N501Y, যার ফলে স্পাইক প্রোটিনের সাথে শরীরের কোষের রিসেপ্টার বেশী ভালো করে আটকে থাকতে পারে। ফলে, কোষ ও ভাইরাসের সাথে সুদৃঢ় বন্ধন তৈরি হয়। ইনফেক্সিয়াস ডিসিস এক্সপার্ট ডঃ অ্যান্থনির মতে, কোষের সাথে ভাইরাসের এই বেশী স্থায়ী ও দৃঢ় বন্ধন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণক্ষমতাকে অনেকটা বাড়িয়ে তোলে।  

২) আর একটি মিউটেশান হচ্ছে, H69/V70 ডিলিশান। যার ফলে, স্পাইক প্রোটিনের একটি ছোট কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ অংশ বাদ পড়ে যায়। কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ রবি গুপ্তা তাঁর গবেষণায় জানিয়েছেন, এই H69/V70 ডিলিশান মিউটেশানের ফলে, ভাইরাসের সংক্রমণ ক্ষমতা প্রায় দুইগুন বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও, তাঁর গবেষকদল এই ভাইরাসের ফলে সংক্রমিত রোগীর দেহে অপেক্ষাকৃত কম কার্যকরী অ্যান্টিবডির উপস্থিতি লক্ষ্য করেছেন। 

নিউক্র্যাড হেলথ নিয়ে আসছে নিউক্র্যাড হেলথ হাব – বাংলায় এক নতুন স্টার্ট আপ ,
এক বাঙালি বিজ্ঞানীর হাত ধরে। নিউক্র্যাড হেলথ হাব এর এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ প্রোগ্রাম এ কোনো পুঁজি না লাগিয়ে অংশ গ্রহণ করতে অথবা জানতে হোয়াট’স আপ করুন +917001105893

এই নতুন স্ট্রেনের সংক্রমণ ক্ষমতা কেমন?

প্রাথমিকভাবে দেখা যাচ্ছে, এই ভাইরাসের সংক্রমণক্ষমতা অনেক বেশী। তবে, সরাসরি বৈজ্ঞানিক তথ্য প্রমান এখনো পাওয়া যায় নি। শুধু দেখা যাচ্ছে, যেখানে এই নতুন স্ট্রেনের ভাইরাসের উপস্থিতি, সেখানে রোগীর সংক্রমণের হার প্রায় দ্বিগুণ! সেন্টার ফর ডিসিস কনট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশানের গবেষণা বলছে, এখনো B.1.1.7 স্ট্রেনের সংক্রমণের ফলে বেশী অসুস্থতা বা মৃত্যু ঘটে নি, কিন্তু ৪০-৭০% সংক্রমণ নতুন স্ট্রেনের জন্যে ঘটেছে। ব্রিটিশ হেলথ সেক্রেটরির বক্তব্য অনুযায়ী, ব্রিটেনের স্ট্রেনের সাথে তুলনা করলে, সাউথ আফ্রিকার স্ট্রেনের সংক্রমণ তীব্রতা অনেক বেশী। আর সেটাই চিন্তার বিষয়। 

করোনাভাইরাসের কি কোন অন্য নতুন স্ট্রেন আছে

সময়ের সাথে সাথে ভাইরাসগুলি প্রাকৃতিক নির্বাচনের সুবিধা পায়। প্রতি সপ্তাহেই এই নতুন SARS-CoV-2 স্ট্রেন শনাক্ত করা হচ্ছে। তবে, তার মধ্যে কিছু ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে, বাকিগুলি সংক্রমিত হয় না। সজীব কোষ ব্যাতিত যেহেতু ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে না, সেই ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করলে এই মিউটেশান যুক্ত SARS-CoV-2 স্ট্রেনের সংক্রমণ ঠেকানো সম্ভব। 

Subscribe Bengali YouTube Channel: Neucrad Health নিউক্র্যাড হেলথ Bangla

নতুন করোনাভাইরাস ভ্যারিয়েন্টেগুলির ক্ষেত্রে কি ভ্যাকসিন কাজ করবে?

আমরা জানি, এই মুহূর্তে বেশিরভাগ ড্রাগ ডেভেলপিং কোম্পানিগুলি, করোনাভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনের উপর ভিত্তি করে ভ্যাকসিন তৈরি করছে। তত্ত্বগত ভাবে, মিউটেশান কম গুরুত্বপূর্ণ হলে, সেটি ভ্যাকসিনের কার্যকারিতার উপর কোন প্রভাব ফেলবে না। কিন্তু, স্পাইক প্রোটিন জিনে ক্রমাগত মিউটেশান হতে থাকলে, তা ভ্যাকসিনের কাজকে প্রতিহত করে, সংক্রমণ ছড়াতে পারে। এই ঘটনা থেকে বোঝা যায়, ভাইরাসটি ক্রমাগত অভিযোজনের চেষ্টা করছে। ইউনিভার্সিটি অফ গ্লাসগোর অধ্যাপক প্রফেসর ডেভিড রবার্টসনের মতে এই ভাইরাসের মিউটেশান ভ্যাকসিনের কার্যকারিতাকে প্রতিহত করতেও পারে। যদি এই ঘটনা ঘটে, তবে তখন ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো করোনা ভাইরাসের প্রতিটি আলাদা স্ট্রেনের জন্যে ভ্যাকসিন বার করতে হবে। অর্থাৎ, বিষয়টি ক্রমশ জটিল হয়ে পড়বে।    

যতক্ষণ পর্যন্ত, বৃহৎ জনগোষ্ঠীর থেকে যথেষ্ট তথ্য না পাওয়া যাচ্ছে আর গবেষণার কাজ আরও এগোচ্ছে, আমাদের কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে সতর্কতামূলক ব্যাবস্থা গ্রহন করতেই হবে। অর্থাৎ, মাস্ক পরা, জনবহুল স্থান এড়িয়ে চলা, নির্দিষ্ট শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, নিয়মিত সাবান ও স্যানিটাইইজার ব্যাবহার করা ইত্যাদি।    

তথ্যসূত্রঃ

1.         https://www.bbc.com/news/health-55388846

2.         Wise J. Covid-19: New coronavirus variant is identified in UK. BMJ. 2020 Dec 16;371:m4857. doi: 10.1136/bmj.m4857. PMID: 33328153.

3.         Salali GD, Uysal MS. COVID-19 vaccine hesitancy is associated with beliefs on the origin of the novel coronavirus in the UK and Turkey. Psychol Med. 2020 Oct 19:1-3. doi: 10.1017/S0033291720004067. Epub ahead of print. PMID: 33070804; PMCID: PMC7609204.

4.         de Lusignan S, Lopez Bernal J, Zambon M, Akinyemi O, Amirthalingam G, Andrews N, Borrow R, Byford R, Charlett A, Dabrera G, Ellis J, Elliot AJ, Feher M, Ferreira F, Krajenbrink E, Leach J, Linley E, Liyanage H, Okusi C, Ramsay M, Smith G, Sherlock J, Thomas N, Tripathy M, Williams J, Howsam G, Joy M, Hobbs R. Emergence of a Novel Coronavirus (COVID-19): Protocol for Extending Surveillance Used by the Royal College of General Practitioners Research and Surveillance Centre and Public Health England. JMIR Public Health Surveill. 2020 Apr 2;6(2):e18606. doi: 10.2196/18606. PMID: 32240095; PMCID: PMC7124955.

5.         Wise J. Patient with new strain of coronavirus is treated in intensive care at London hospital. BMJ. 2012 Sep 24;345:e6455. doi: 10.1136/bmj.e6455. PMID: 23008211.

6.         https://www.nature.com/articles/d41586-020-03605-6

7.         https://www.gov.uk/government/news/covid-19-sars-cov-2-information-about-the-new-virus-variant

Write your comments

%d bloggers like this: